Spread the love

কিওয়ার্ড কি?

সার্চ ইঞ্জিনে কোন কিছু জানতে বা দেখতে চেয়ে আমরা যে শব্দ বা বাক্য লিখে সার্চ করি সেই শব্দ বা বাক্যই হচ্ছে এক একটি কিওয়ার্ড (keyword)।

ধরুন আপনি একটি নতুন ট্রিমার কেনার কথা ভাবছেন। তবে ট্রিমার সম্পর্কে আপনার তেমন ভালো ধারনা নেই। এখন গুগলে ট্রিমার কেনার টিপস বা ট্রিমারের দাম জানতে চেয়ে সার্চ দিলেন। এই জানতে চেয়ে আপনি গুগল বা যে কোন সার্চ ইঞ্জিনের সার্চ বারে যা লিখে আপনি সার্চ করেন বা কেউ করে প্রত্যেকটি শব্দ বা বাক্যই এক একটি কিওয়ার্ড।

কিওয়ার্ড রিসার্চ কি?

আপনি যদি একজন ব্লগার হয়ে থাকেন তাহলে ইতি মধ্যে কি ওয়ার্ড রিসার্চ এর কথা শুনে থাকবেন। আমিও একজন ছোট খাটো ব্লগার। প্রতিনিয়ত আমার ব্লগে লেখা লেখি করার জন্য- যে বিষয়ে লিখব সে বিষয়টি মানুষ জানতে চায় কিনা, কতো জন মানুষ এই বিষয়টি জানতে চেয়ে সার্চ করে কিংবা আরও কতোগুলো ওয়েবসাইট বা ব্লগে এই বিষয়টি নিয়ে লেখা হয়েছে তা নিয়ে একটু ঘাটাঘাটি করতে হয়। আর এই কাজগুলোই হচ্ছে কিওয়ার্ড রিসার্চ।

এক কথায় কিওয়ার্ড রিসার্চ হচ্ছে, কন্টেন্ট লেখার পূর্বে ওই কন্টেন্ট সম্পর্কে জানতে চেয়ে মানুষ কি লিখে সার্চ করে, কন্টেন্ট এর সার্চ ভলিউম, প্রতিযোগী সম্পর্কে বিস্তারিত গবেষণা বা ধারনা নেওয়াকে কি ওয়ার্ড রিসার্চ বলে।

কেন কিওয়ার্ড রিসার্চ করতে হয়?

আমরা ইতিমধ্যে জানলাম মানুষ যা লিখে সার্চ করে তাইই কিওয়ার্ড। আর যে কিওয়ার্ডটি সার্চ করে সেই কোন ব্লগ বা সাইটে  থাকলে এবং ইটটি যদি সার্চ ইঞ্জিনের সাথে সংযুক্ত থাকে তবে সার্চইঞ্জিন সে সেসকল সাইট বা কন্টেন্ট সার্চকারীর সামনে উপস্থাপন করে। আর কোনভাবে যদি কেউ ভুল লিখে থাকে তাহলে সার্চ ইঞ্জিন সেগুল সাজেস্ট করে না।

ধরুন আপনি নতুন একটি অনলাইন শপ বা ই-কমার্স সাইট খুললেন। যেখানে আপনি ছেলেদের রূপচর্চা করার কিছু প্রোডাক্টের আপলোড করে রাখলেন কিন্তু ভুলে মেয়েদের কোন প্রোডাক্টের নাম দিয়ে রাখলেন। এবং এর উপরই এসিও করে গেলেন। আপনি যতই এসিও করেন না কেন এর ফলে আপনার প্রোডাক্টটি টার্গেটেড ক্রেতার কাছে প্রোডাক্টটি পৌঁছাবে না।

ঠিক একই ভাবে আপনি যা লিখেন না কেন সার্চ ইঞ্জিন বা ইউটিউবেও যদি কোন ভিডিও আপলোড করেন এবং এভাবে ভুল টাইটেল দিয়ে কোন কন্টেন্ট পাবলিশ করেন আপনার পরিশ্রম বৃথা হয়ে যাবে।

কিভাবে কি ওয়ার্ড রিসার্চ করবেন?

বর্তমানে কয়েক ডজন কিওয়ার্ড রিসার্চ টুলস রয়েছে। যে গুলোর সাহায্যে আপনি কিওয়ার্ড রিসার্চ করতে পারেন। গুগল পৃথিবীর সব থেকে বড় সার্চ ইঞ্জিন। এই গুগলের সাহায্যেই আপনি কিওয়ার্ড রিসার্চ করতে পারেন।

গুগলের সাহায্যে কিওয়ার্ড রিসার্চ

প্রথমেই আপনি কোন বিষয় নিয়ে আর্টিকেল লিখতে চাইছেন সেটি নির্ধারণ করুন। আপনি যে বিষয়ে কন্টেন্ট লিখতে চাইছেন সে বিষয়টি জানতে চেয়ে মানুষ কি লিখ সার্চ করে তা খুজে বের করুন।

তো আপনাদের বোঝানোর সুবিধার্থে একটি ধরুন আপনি Netspend নিয়ে একটি আর্টিকেল লিখতে চাইছেন। এখন আপনি যদি গুগলে সার্চ করেন তাহলে আপনার সামনে ইতিমধ্যে পাবলিশ হওয়া অনেকগুলো ফলাফল প্রদর্শিত হবে।

ঠিক নিচের ছবিতে যেভাবে দেখতে পাচ্ছেন, আপনি সার্চ বারে আপনার লেখার পাশে মাউসরেখে একটি ক্লিক করুন। পাশে খেয়াল করবেন আপনাকে অনেকগুলো সাজেশন দেখাচ্ছে। অর্থাৎ মানুষ ঠিক এই লেখাগুলো লিখেও একই বিষয় সম্পর্কে জানতে চাইছে।

https://tipswali.com/wp-content/uploads/2020/08/keyword-research-bangla.png

NetSpend সম্পর্কে জানতে চেয়ে মানুষ আরও যে সকল বিষয় লিখে সার্চ করে সগুলোও আপনার কন্টেন্ট এর মধ্যে রখুন। যেমন- Is Netsoend Legit, ntspend app, কিভাবে একটি করা যায়। আপনি এই আর্টিকেলগুলোর সমন্বয়ে একটি লং টেইল কিওয়ার্ড তৈরি করুন। ফলে মানুষ যা লিখেই সার্চ করে না কেন আপনার কন্টেন্ট এ মধ্যে যেন থাকে।

এর ফলে মানুষ যখন নেটস্পেন্ড লিখে সার্চ করবে না এই কিওয়ার্ডগুলো লিখে সার্চ করবে সার্চইঞ্জিন তাদের সামনে আপনার কন্টেন্টটি প্রদর্শন করবে।

অবশ্যই সকল প্রকার অনপেজ এসিও করতে হবে অর্থাৎ এসিও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লিখতে হবে। যদি বেশি কম্পিটিশন থাকে অর্থাৎ অনেক বেশি আর্টিকেল ইতিমধ্যে পাবলিশ হয়ে গেছে তাহলে আপনাকে জোরালো ভাবে অফ পেজ এসিও করতে হবে।

কয়েকটি জনপ্রিয় কিওয়ার্ড রিসার্চ টুলস

আমি ইতিমধ্যে বলছি বর্তমানে কয়েক ডজন keyword research টুলস রয়েছে। এসকল টুলস ব্যবহার করে আপনি ওই কিওয়ার্ড এর মাসিক সার্চ ভলিউম দেখে নিতে পারবেন। ওই কি ওয়ার্ডটি নিয়ে কাজ করলে আপনার প্রতিযোগীদের ফেলে প্রথমে জাওয় আপনা জন্য কতো সহজ দেখে নিতে পারবেন।

এখান থেকে কিওয়ার্ডগুলো নিয়ে কয়েকটি কিওয়ার্ডের সমন্বয়ে একটি টাইটেল তৈরি করুন। এবং এই কি ওয়ার্ডগুলো আপনার কন্টেন্ট এর মধ্যে রাখুন।

কোন ধরনের Keyword নিয়ে কাজ করা উচিত?

ধরুন আপনি আমি আমার এক বন্ধু তিনজন দৌড় প্রতিযোগিতায় নামলাম। এখানে আমরা নিশ্চিত কে প্রথম কে দ্বিতীয় আর কে থার্ড হবে। কিন্তু আমরা যদি ১০০০ জনের সাথে নামতাম তাহলে কে ফার্স্ট বা প্রথম দিকে থাকতো কেউ নিশ্চিত নয়। আপনি বা আমি কোন কিছু সার্চ করলে সার্চ রেজাল্টে পাওয়ায় প্রথম কোন লিংকেই ভিজিট করি।

তাহলে কথা হচ্চে, আপনি যে বিষয় নিয়ে লিখতে চাইছেন। খুঁজে বের করুন কোন কিওয়ার্ডটি নিয়ে কম আর্টিকেল পাবলিশ করা হয়েছে। সেই কিওয়ার্ডটি নিয়ে কাজ করুন। বিশেষ করে যারা নতুন।

কিভাবে লো কম্পিটিটর কিওয়ার্ড খুজে পাবেন এবং এসিও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লিখবেন জানতে নিচের ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন।

প্রিয় পাঠক, বাংলা ভাষায় সকল প্রকার টিপস ও ট্রিক্স জানতে নিয়মিত ভিজিট করুন আপনাদের প্রিয় টিপসওয়ালী ডট কম।

1 Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *