https://tipswali.com/wp-content/uploads/2021/04/Lip-Balm.jpg

সম্মানিত ভিজিটর, আজকের লেখাজুড়ে বিস্তারতি আলোচনা করবো লিপবাম কি, কি দিয়ে তৈরি, এর উপকারিতা, অপকারিতা বা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া, বাসায় কীভাবে লিপ বাম বানানো যায়, দাম ও কোথায় কিনতে পাওয়া যায়। তো কথা না বাড়িয়ে চলুন শুরু করা যাক।

লিপ বাম কি?

Lip Balm বা লিপ বাম হচ্ছে এক ধরনের বিউটি প্রোডাক্ট যা কিনা ঠোঁট শুকানো বা ঠোঁট ফাটা ও ঠাণ্ডা জনিত ঘা বা ব্যাথা থেকে ঠোঁটকে রক্ষা করতে ব্যবহৃত হয়ে থাকে।

আরও পড়ুনঃ কালো ঠোঁট ফর্সা করার উপায়

লিপবাম কি দিয়ে তৈরি?

লিপবাম সাধারণত বিওয়াক্স (beewax) বা মোম, কর্পূর, প্যারাফিন, পেট্রোলিয়াম, ল্যানলিন, সামান্য অ্যালকোহল, নানা ফ্লেবার দিয়ে তৈরি করা হয়।

Lip Balm (লিপবাম) আবিষ্কারের ইতিহাস

১৮৮০ সালের দিকে সর্বপ্রথম চার্লস ব্রাউন ফ্লিট লিপ বাম বাজারে নিয়ে আসেন। তবে ফ্লিটের কমার্শিয়াল ভাবে বাজারে আনার প্রায় ৪০ বছর আগে লিডিয়া মারিয়া চাইল্ড  তার বিখ্যাত বই ” দ্যা আমেরিকান ফ্রুগাল হাউসওয়াইফ বইতে প্রথম ফাটলযুক্ত ঠোঁটের জন্য এয়ারওয়াক্স এর পরামর্শ দিয়েছিলেন।

লিপ বামের উপকারিতা

আসলে লিপব্যায়াম ব্যবহারের আলাদা প্রাকৃতিক কোন উপকারিতা নেই। যে কারনে আপনি লিপবাম ব্যবহার করতে পারেনঃ

১) কোমল ঠোঁট

ড্রাই স্কিনের প্রথম ছাপ মানুষের ঠোঁট। আমাদের ঠোঁটের স্কিন মুখের স্কিনের তুলনায় বেশি পাতলা। আপনি যদি ঠোঁট ফাটা কিংবা চামড়া ওঠা জনিত সমস্যায় ভোগেন তবে আপনি এটি ব্যবহার করতে পারেন।

২) ঠোঁটের ত্বক সুরক্ষা

আমাদের অনেকের ঠোঁট ফাটা জনিত সমস্যা আছে বিশেষ করে শীতকালে। আবার অনেকের রাতে ঘুমানোর পর ঠোঁট ফাটে। আপনারও যদি এই সমস্যা থাকে তবে আপনিও রাতে ঘুমানোর আগে Lip Balm লাগিয়ে নিতে পারেন।

৩) রঙিন ঠোঁট

লিপ বাম ঠোঁটে ময়েশ্চারাইজিং এর পাশাপাশি আপনার ঠোঁট হালকা রঙিন করে তোলে। তাই অনেকেই ঠোঁট আকর্ষণীয় করতে লিপস্টিকের পরিবর্তে Lip Balm ব্যবহার করে থাকেন। কারন একই সাথে ময়েশ্চারাইজিং ও ঠোঁট ফাটা থেকে মুক্তি মেলে।

৪) লিপস্টিকের কালার আরও উজ্জল করতে

লিপস্টিক ব্যবহারের আগে Lip Balm ব্যবহার করলে লিপস্টিক আরও বেশি মসৃণ ও আকর্ষণীয় মনে হয়। আর লিপস্টিক আপনাকে আদ্রতা এনে দিবে না। তাই লিপস্টিক সোয়াইপ করার আগে লিপবাম ব্যবহার করে নিতে পারেন।

লিপ বাম ব্যবহারের অপকারিতা

ঠোঁট আকর্ষণীয় ও ব্যাথা থেকে মুক্তি দিলেও এটি পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া মুক্ত নয়। উপকারের পাশাপাশি এই কিছু ক্ষতিকর দিকও রয়েছে।

বিশেষ করে যাদের এলারজি জনিত সমস্যা রয়েছে তাদের ঠোঁটে ফুসকুড়ি সৃষ্টি করতে পারে। অনেক ব্র্যান্ডে অ্যালার্জেন থাকে এলারজি জনিত সমস্যা থাকলে এটি আপনার ঠোঁটে ফুসকুড়ি সৃষ্টি করে।

আবার অনেক ব্র্যান্ডে ফেনল, মেন্থল, স্যালিসিলিক, অ্যাসিডের মতো উপাদান রয়েছে যা আপনার ঠোঁটকে আরও শুষ্ক করে তুলতে পারে।

আবার অনেক ব্র্যান্ডের মধ্যে প্যারাফিন, পেট্রোলিয়াম, রঞ্জক এবং ফেনোলের মতো বিপজ্জনক উপাদান রয়েছে। তাই কেনার আগে প্যাকেটের গাঁয়ে উপাদান গুলে দেখে নিন ।

বাসায় কীভাবে লিপ বাম বানানো যায়

আপনি যদি বাজারের রসায়নিক যুক্ত লিপ বাম ব্যবহার করতে না চান তবে আপনি চাইলে বাসায় বসে Lip Balm তৈরি করে নিতে পারেন।

১) স্ট্রবেরি লিপ বাম

যা যা প্রয়োজনঃ সম্পূর্ণ পাকা ১ টি স্ট্রবেরি ও তিন চামচ নারিকেল তেল।

যে ভাবে তৈরি করবেনঃ বেলেন্ডার এর সাহায্যে স্ট্রবেরিটি পেস্ট এর মতো স্মুথ করে নিন। এর মধ্যে তিন চা চামচ নারিকেল তেল দিন। এবং ভালোভাবে মিশ্রিত করে ফ্রিজ করুন। শক্ত হয়ে গেলে ব্যবহার করুন।

২) ভিটামিন-ই যুক্ত লিপবাম

যা যা প্রয়োজনঃ ৩ টি ভিটামিন-ই ক্যাপসুল (বাসার আসে পাশে ফার্মেসিতেই পেয়ে যাবেন), ১ টেবিল চামচ গ্রেটেড কোকো মাখন, ১ চা চামচ গ্রিন টি পাতাগুঁড়া, ২ টেবিল চামচ নারিকেল তেল, ৩ ফোটা তেল (গোলাপ, ল্যভেন্ডার, ভ্যানিলা যে কোন একটি তেল)।

একটি ছোট পাত্রে নারিকেল তেল নিয়ে হালকা আচে (চুলায়) গ্রিনটি পাতাগুলো ভালভাবে মিশিয়ে নিন। এরপর চিজক্লথ এর সাহায্যে ছেকে আলাদা একটি পাত্রে নিন। এবার একটি প্যানে কোকো  বাটার গলিয়ে স্টেইন্ড নারিকেলের তেলের সাথে যুক্ত করুন। এবার ভিটামিন-ই তেল ও বাকি সব একসাথে করে ভালোভাবে নাড়ুন। মিশ্রণটি কমপক্ষে তিনঘণ্টা ফ্রিজে রাখুন এরপর ব্যবহার করুন।

কতো সময় পর পর লিপবাম ব্যবহার করা উচিত?

অনেককেই একটু পর পর Lip Balm ব্যহার করতে দেখা যায়। তবে এটা একদমই উচিত না। সকালে ঘুম থেকে উঠে ফ্রেস হয়ে একবার। খাওয়ার পড়ে ও ঘুমাতে যাওয়ার আগে ব্যবহার করা যেতে পারে। তবে খাওয়ার আগে লিপ বাম ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন। এটি আপনার জন্য ক্ষতির কারন হয়ে দাড়াতে পারে। এতে থাকা উপাদানগুলো  খাবারের সাথে পেটে চলে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

লিপ বামের দাম কত?

বাজারে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ও দামের লিপ বাম পাওয়া যায়। বাংলাদেশে একটি লিপবামের দাম ১০০ থেকে ৫০০+ টাকা পর্যন্ত। আপনি অবশ্য ১০০ টাকার কম দামেও কিনতে পেয়ে যাবেন।

কোথায় ভালো লিপ বাম কিনতে পাওয়া যায়

বাসার পাশের কসমেটিক্স এর দোকান থেকে শুরু করে শপিংমল ও দেশের শীর্ষস্থানীয় অনলাইন শপগুলোতে লিপবাম কিনতে পাওয়া যায়।

সর্বশেষ

ঠোঁটের যত্নে লিপবামের ভূমিকা অসাধারন। তবে সঠিক নিয়মে ও ভালো মানের Lip Balm ব্যবহার করুন। অবশ্যই নকল পন্য হতে সাবধান থাকুন।

Leave a Reply