Site icon TipsWali

বাড়িতে মাউথ ওয়াশ তৈরির নিয়ম -সম্পূর্ণ ঘরোয়া উপায়

https://tipswali.com/wp-content/uploads/2021/08/homemade-mouthwash.jpg

আমরা সাধারণত মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে মাউথ ওয়শ ব্যবহার করে থাকি। এতে মূলত মুখের ব্যাকটেরিয়া নিধন করতে সক্ষম এমন অ্যাসিড থাকে। বাজারে নানা ব্রান্ডের ও বর্ণের মাউথ ওয়াশ কিনতে পাওয়া যায়। তবে আপনি চাইলে সহজেই বাসায় বসে এটি তৈরি ও ব্যবহার করতে পারেন।

সম্মানিত ভিজিটর আজকের লেখাজুড়ে বাসায় বা ঘরোয়া উপায়ে মাউথ ওয়াশ তৈরি করার নিয়ম ও ব্যবহার সম্পর্কে আলোচনা করবো। চলুন জেনেন নেওয়া যাক যেভাবে তৈরি করবেন-

বেকিং সোডা দিয়ে মাউথ ওয়াশ তৈরি

গবেষণায় দেখা যায় যে, বেকিং সোডা কার্যকর ভেব মুখের মধ্যে থাকা ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করতে সক্ষম। এই বেকিং সোডা সোডিয়াম বাইকার্বোনেট নামেও পরিচিত। গবেষণায় আরও বলা হয় যে সকল টুথপেস্টে উচ্চ মাত্রায় বেকিং সোডা আছে সেগুলো মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে বেশি কার্যকরী।

বেকিং সোডার সাহায্যে মাউথ ওয়াশ বানানোর নিয়ম- এক কাপ গরম পানিনে ২ চা চামচ বেকিং সোডা নিন। এই পানি দিয়ে ৩০ সেকেন্ড কুলকুচি করুন। ও ফেলে দিন। বেশি গরম পানি মুখে দেওয়া থেকে বিরত থাকুন। সুত্রঃ হেথ লাইন।

ভিনেগারের সাহায্যে মাউথ ওয়াশ তৈরি করুন

ভিনেগারে অ্যাসিটিক অ্যাসিড নামে একটি প্রাকৃতিক অ্যাসিড থাকে। ব্যাকটেরিয়া অম্লীয় পরিবেশে বাড়তে পারে না। তাই ভিনেগার মাউথ ওয়াশ ব্যাকটেরিয়া বৃদ্ধি হ্রাস করতে পারে।

যেভাবে বাসায় বসে মাউথ ওয়াশ তৈরি করবেন- ১ কাপ পানিতে দুই টেবিল চামচ সাদা বা আপেল সিডার ভিনেগার যোগ করুন। এর পর এ দিয়ে গার্গল করুন।

এলভেরা দিয়ে মাউথ ওয়াশ তৈরি

এলোভেরা দিয়ে খুব সহজেই বাসায় বসে Mouthwash তৈরি করা যায়। চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে তৈরি করতে হবে।

যা যা প্রয়োজন হবে- আধা কাপ এলোভেরা জুস, আধা কাপ ডিস্টিল ওয়াটার, আধা কাপ বেকিং পাউডার, পরিষ্কার ও ছিপি সহ একটি বোতল।

যেভাবে তৈরি করবেন- পরিষ্কার বোতলে সবগুলো উপাদান একসাথে ঢালুন, এরপরে বোতলের মুখ লাগিয়ে দিন। সমস্ত উপাদান এবং বেকিং সোডা দ্রবীভূত না হওয়া পর্যন্ত ভালোভাবে ঝাঁকান। ব্যবহার শেষে ফ্রিজে রাখুন আবার পড়ে নরমল করে ব্যবহার করুন। বাহিরে রাখলে নষ্ট হয়ে যাবে। ২০ থেকে ৩০ সেকেন্ড মুখে নিয়ে গার্গল করুন ও ফেলে দিন।

সাবধানতাঃ Mouthwash কখনো গিলে ফেলবেন না। অবুজ শিশুদের থেকে নিরাপদ দূরত্বে রাখুন। এবং নিজেও সতর্কতার সাথে ব্যবহার করুন। বেশি সময় মুখে রাখা কিংবা গিলে ফেলা থেকে বিরত থাকুন। অতিরিক্ত ব্যবহার করা থেকেও বিরত থাকুন।

সর্বশেষ

মুখের দুর্গন্ধ থাকার কারনে অনেকেই আপনাকে এড়িয়ে চলবে পাশাপাশি নিজের কাছে বেশ অসহ্য লাগতে পারে। প্রাকৃতিকভাবে মুখের দুর্গন্ধ দূর করার উপায় সম্পর্কে জানুন।

আমাদের লেখা নিয়ে আপনার কোন মতামত কিংবা পরামর্শ থাকলে শেয়ার করতে পারেন আমাদের সাথে। বাংলা ভাষায় নিয়মিত টিপস পেতে ভিজিট করুন আপনাদের প্রিয় টিপসওয়ালী।

Exit mobile version