https://tipswali.com/wp-content/uploads/2021/04/pigeon-meat-bangladesh.jpg

কবুতরের মাংস শুনলেই জিব্বার ডগায় পানি চলে আসে অনেকের। তবে পোষা পাখি হিসেবে কবুতরের নাম তালিকার প্রথম দিকেই জায়গা পায়। এক সময় যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম ছিল এই কবুতর। আজকালও খবরের কাগজে কবুতরের গোয়েন্দাগিরি নিয়ে নানা খব দেখতে পাওয়া যায়। কিন্তু আপনি জেনে অবাক হবেন যে ছোট এই পোষা পাখিটির মাংসে রয়েছে চমৎকার পুষ্টিগুন। বেশি পুষ্টিকর খাবারের তালিকায় কবুতরের মাংসের কথা থাকবে না এমনটা কল্পনাও করা যায় না।

প্রিয় ভিজিটর, আজকের লেখাজুড়ে বিস্তারিত কথা হবে কবুতরের মাংসের পুষ্টিগুন, কবুতরের বাচ্চার মাংস খাওয়ার উপকারিতা, খাওয়ার নিয়ম, ও রান্না করার নিয়ম বা রেসিপি। কথা না বাড়িয়ে চলুন জেনে নেওয়ার যাক সুস্বাদু ও পুষ্টিকর খাবারটি সম্পর্কে।

কবুতরের মাংসের পুষ্টিগুন

প্রচলিত আছে একটি কবুতর এর মাংসে থাকা পুষ্টি গুন ৯ টি মুরগির পুষ্টির সমান। এক গবেষণায় দেখা যায় অন্যান্য মাংসের তুলনায় কবুতরের মাংসে প্রায় ২-২৪ শতাংশ বেশি প্রোটিন রয়েছে। এবং এতে ফ্যাটের পরিমান খুবই সামান্য প্রায় ১ শতাংশ।  এছাড়াও এই মাংসে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন এ, বি, ই ও ভিটামিন ডি এবং আয়রন, জিঙ্ক, সেলেনিয়াম ও কপার রয়েছে।

কবুতরের বাচ্চার মাংস খাওয়ার উপকারিতা

আশা করছি আপনি ইতিমধ্যে কবুতরের মাংস খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে বেশ ভালো ধারনা পেয়ে গেছেন। প্রচুর পুষ্টিগুনের পাশাপাশি আরও কিছু বিশেষ উপকারিতা সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

১) পুষ্টি পরিপূরক

বিশেষজ্ঞদের মতে কবুতরের মাংস একটি ভালো খাদ্যের পাশাপাশি ভালো ওষুধও। এরে শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় নানা পুষ্টি উপাদান রয়েছে। কম চর্বি থাকায় এটি একটি ভালো পুষ্টিকর পরিপুরক। কবুতরের মাংস রক্তের লিপিড ও শর্করা বাড়ায় না।

২) রোগ প্রতিরোধক

কবুতরের মাংসে রয়েছে প্রচুর প্রোটিন ও ভিটামিন । যা আপনার শরীরের পুষ্টি চাহিদা পুরনের পাশাপাশি রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে বেশ কার্যকরী। অস্ত্রপাচারের পর রোগীর ক্ষত পুনরুদ্ধার ও নিরাময়ে ভালো ভুমিকা পালন করে।

মধ্য বয়সী, বয়স্ক অসুস্থ, হাইপারলিপিডেমিয়া, কার্ডিওভাসকুলার এবং সেরিব্রোভাসকুলার রোগী, ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য কবুতরের মাংস বিশেষ উপকারি।

৩) স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি ও স্কিনের উন্নতি

কবুতরের মাংস পুষ্টিতে সমৃদ্ধ এবং এতে থাকা পুষ্টি উপাদান মস্তিষ্কের উন্নয়ন ও স্মৃতিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। পাশাপাশি এটি আপনার স্কিন বা ত্বকের সতেজতা আনয়নে বেশ কার্যকরী।

৪) লিভার কিডনি ও রক্তের উন্নয়ন

চাইনিজ চিকিৎসা বিজ্ঞান মতে কবুতরের মাংস লিভারের উন্নতি সাধন ও কিডনি শক্তিশালী করে। এছাড়াও রক্ত পুষ্ট করে তোলে ও শরীরের অন্যনায় তরল উপাদানের মান উন্নয়নে ভুমিকা পালনকরে। যা আপনাকে দীর্ঘ স্থায়ী অসুস্থতা ও শারীরিক দুর্বলতা থেকে মুক্তি দেয়।

কবুতরের মাংস রান্না করার নিয়ম বা রেসিপি

নানা পুষ্টিগুনে ভরপুর কবুতরের মাংস খেতেও বেশ সুস্বাদু। তবে  খাওয়ার জন্য বাচ্চা কবুতরের মাংস বেশি উপকারি ও পুষ্টি সমৃদ্ধ। তো কথা না বাড়িয়ে চলুন রান্না করার সঠিক উপায় ও রেসিপি জেনে নেওয়া যাকঃ

প্রথমেই কবুতরের বাচ্চা জবাই করে চামড়া ছিলে নিন অথবা আস্তে আস্তে পালক তুলে নিন । ছোট ছোট টুকরা করে কেটে ভালো করে ধুয়ে পরিষ্কার করুন। ফ্রিজে রেখে কবুতরের মাংস না খাওয়াই উত্তম। তাই তাজা তাজা রান্না করার চেষ্টা করুন।

উপকরণ

দুইটি বা এক জোড়া কবুতরের বাচ্চা রান্না করার জন্য যে সব উপকরন লাগবেঃ সরিষার তেল তিন টেবিল চামচ, আধা কাপ পেঁয়াজ কুচি বা বাটা, এক টেবিল চামচ পরিমান, আদা ও রসুন বাটা (আপনি চাইলে কম বেশি দিতে পারনে) এক টেবিল চামচ, এক চা-চামচ হলুদের গুঁড়া, এক বা দুই চামচ মরিচের গুঁড়া, ৪-৬ টি কাঁচা-মরিচ (না দিলেও সমস্যা নেই), গোল-মরিচ ৪/৫ টি, ভাঁজা জিরার গুঁড়া ১/২ চা চামচ, এলাচ ২-৩ টি, লবঙ্গ ৩-৪ টি, ৪-৫ কোয়া আস্ত রসুন, দারুচিনি ও পছন্দ মতো আলো ও পরিমান মতো লবন। দারুচিনি লবঙ্গ ভালো না না লাগলে কিংবা কম মশলা পছন্দ করলে আপনি চাইলে এগুলো বাদ দিয়ে দিতে পারেন।

যেভাবে রান্না করবেন

পদ্ধতি ১ঃ

প্রথমে একটি পাতিলে কবুতরের মাংস, আদা, আলু, রসুন বাটা, লবন, মরিচ, হলুদ, মরিচ তেল, পিঁয়াজ একসাথে দিয়ে মাখিয়ে নিন। এবার পরিমান মতো তাপে কষাতে থাকুন। ঘ্রান বের হলে পরিমাণ মতো পানি দিয়ে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে রাখুন কিছু কিছুক্ষণ পর নেড়ে দিন। ঝোল কমে আসলে তাপ কমিয়ে দিন। আপনার পছন্দ মতো ঝোল রেখে আলাদা পাত্রে জিরার গুঁড়া ভেজে একটু ভেঙে নিন এজন্য চামচ দিয়ে একটা/দুইটা ডলা দিলেই হয়ে যাবে।  চুলা বন্ধ করে দিন এবং জিরার গুঁড়া ছিটিয়ে দিন।

পদ্ধতি-২ঃ

প্রথমে আদলা ভাবে মশলা কষিয়ে নিন। কষানো শেষ হলে আলু দিয়ে ও মাংস দিয়ে আরও কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করুন ও কষিয়ে নিন। আপনি চাইলে আলু নাও দিতে পারেন। এটা আপনার নিজের উপর নির্ভর কররে। তবে আলু না দিলে লবন দেওয়ার সময় হিসাব করে দিবেন। কষানো শেষ হলে মাংস সিদ্ধ হওয়ার জন্য পর্যাপ্ত পরিমান পানি দিয়ে ঢেকে রাখুন। ভুনা করতে চাইলে কবুতরের মাংসে কম পানি দিন। ঝোল কমে আসলে কাচামরিচ ও ভাঁজা জিরার গুঁড়া দিয়ে নামিয়ে ফেলুন। হয়ে গেল মজাদার কবুতরের মাংস ভুনা। গরম গরম খেয়ে ফেলুন।

প্রিয় ভিজিটর আশা করছি কবুতরের মাংসের পুষ্টিগুন, খাওয়ার উপকারিতা ও রান্না প্রণালী সম্পর্কে বিস্তারিত ধারনা পেয়ে গেছেন। এ নিয়ে আপনার কোন প্রশ্ন, মতামত কিংবা রান্নার অন্যকোন উপায় জানা থাকলে শেয়ার করতে পারেন আমাদের সাথে। ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন।

31 Comments

  1. Howdy! I know this is kinda off topic but I’d figured I’d ask.
    Would you be interested in exchanging links or maybe guest writing a blog post or vice-versa?
    My website goes over a lot of the same topics
    as yours and I think we could greatly benefit from each other.
    If you happen to be interested feel free to send me an email.
    I look forward to hearing from you! Wonderful blog by the way!

  2. I seriously love your blog.. Great colors & theme. Did you buildthis web site yourself? Please reply back as I’m hoping to create my own personal website and want to know where you got this from or what the theme is named.Kudos!

  3. It’s perfect time to make some plans for the future and it’s time to be happy.

    I’ve read this post and if I could I wish
    to suggest you few interesting things or tips. Maybe you could write next articles referring to this
    article. I desire to read even more things about it!

  4. If you are going for best contents like me, only go to seethis website all the time because it presents quality contents, thanks

  5. I really appreciate this post. I’ve been looking all over for this! Thank goodness I found it on Bing. You’ve made my day! Thanks again!

  6. Excellent read, I just passed this onto a friend who was doing some research on that. And he actually bought me lunch since I found it for him smile So let me rephrase that: Thank you for lunch! “Do you want my one-word secret of happiness–it’s growth–mental, financial, you name it.” by Harold S. Geneen.

  7. Ahaa, its good discussion regarding this post here at this weblog, I have read all that, so now
    me also commenting at this place.

  8. you’re in reality a excellent webmaster. The web site loading velocity is amazing. It seems that you’re doing any unique trick. In addition, The contents are masterwork. you’ve done a excellent task on this matter!

  9. Some really good posts on this web site, regards for contribution. “Always aim for achievement, and forget about success.” by Helen Hayes.

  10. Wow! This could be one particular of the most beneficial blogs We have ever arrive across on this subject. Actually Wonderful. I am also an expert in this topic so I can understand your hard work.

  11. I have been surfing online more than three hours today, but I by no means found any fascinating article like yours. It’s beautiful value enough for me. Personally, if all website owners and bloggers made excellent content material as you probably did, the net might be much more useful than ever before. “Nothing will come of nothing.” by William Shakespeare.

  12. I was looking at some of your content on this site and I believe this website is very instructive! Keep on posting .

  13. Asking questions are actually pleasant thing if you are not
    understanding something totally, but this piece of writing provides pleasant understanding
    even.

  14. Heya i’m for the first time here. I found this board and I find It really useful
    & it helped me out a lot. I hope to give something back and aid others like
    you aided me.

  15. I like this blog very much, Its a rattling nice berth to read and find info . “There are two ways of spreading light to be the candle or the mirror that reflects it.” by Edith Newbold Jones Wharton.

  16. I’m not sure the place you are getting your information, however good topic.I must spend a while studying much more or understandingmore. Thank you for wonderful information I used to be in search ofthis info for my mission.

  17. Heya i’m for the first time here. I came across this board and I find It really useful & it helped
    me out a lot. I am hoping to give something again and aid others like you helped me.

  18. I’m curious to find out what blog platform you’re working with?
    I’m experiencing some minor security issues with my latest website and I’d like to find something more risk-free.
    Do you have any solutions?

  19. Howdy! I know this is somewhat off-topic however I needed to ask.
    Does running a well-established blog such as yours require a massive amount work?
    I’m brand new to writing a blog however I do write in my journal on a daily basis.
    I’d like to start a blog so I can easily share my personal experience and
    feelings online. Please let me know if you have any kind of ideas
    or tips for brand new aspiring bloggers. Thankyou!

  20. I really like your blog.. very nice colors & theme. Did you make this website yourself or did you hire someoneto do it for you? Plz respond as I’m looking to design my own blog and would like to know whereu got this from. appreciate it

  21. I’ve learn a few just right stuff here. Certainly pricebookmarking for revisiting. I wonder how a lot attempt you put to create this kind of excellent informative web site.

  22. I really like your writing style, superb info, thanks for putting up :D. “Much unhappiness has come into the world because of bewilderment and things left unsaid.” by Feodor Mikhailovich Dostoyevsky.

  23. Do you have any video of that? I’d like to find out some
    additional information.

  24. You actually make it seem really easy together with your presentation however I to
    find this matter to be actually one thing that I believe I would never
    understand. It seems too complex and extremely extensive for me.
    I am taking a look ahead to your next put up, I’ll attempt
    to get the hold of it!

  25. Your style is so unique in comparison to otherpeople I’ve read stuff from. Thank you for posting when you’ve got the opportunity,Guess I’ll just book mark this page.

  26. This is a topic which is near to my heart… Best wishes!Exactly where are your contact details though?

  27. Some genuinely wonderful posts on this web site , thanks for contribution.

  28. Hi there friends, nice article and fastidious arguments commented
    at this place, I am genuinely enjoying by these.

  29. We are a group of volunteers and starting a new scheme in our community.
    Your web site offered us with valuable information to work on. You have
    done a formidable job and our whole community will be grateful to
    you.

  30. Does your blog have a contact page? I’m having problems locating it but, I’d liketo send you an email. I’ve got some creative ideas for your blog you might be interested in hearing.Either way, great website and I look forward to seeing it develop over time.

  31. The Citizen Nighthawk CA295-58E does not possess elegant technology, in addition to Eco-Drive modern technology. If you are brand-new to this, the watch records any type of type of light and transforms it right into energy.

Leave a Reply