https://tipswali.com/wp-content/uploads/2022/01/rupali-bank-ltd-loan.jpg

বাংলাদেশের রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর মধ্যে রূপালী ব্যাংক লিমিটেড (Rupali Bank Limited) অন্যতম। ১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত এই সরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংকটি সকল প্রকার ব্যাংকিং সুবিধা, ডিপিএস, বীম সেবা প্রদানের পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের লোন বা ঋণ সুবিধা প্রদান করে থাকে।

প্রিয় ভিজিটর, আজকের লেখা জুড়ে আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করবো, রূপালী ব্যাংক লিমিটেড এর বিভিন্ন প্রকার লোন পদ্ধতি, লোনের সুদের হার ও মেয়াদ, আবেদনের নিয়ম, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড লোন সম্পর্কিত অন্যান্য বিষয় নিয়ে বিস্তারিত।

Table of Contents

রূপালী ব্যাংক ব্যবসায়ী ঋণ

বাংলাদশ রূপালী ব্যাংক লিমিটেড ট্রেডিং এবং উৎপাদন কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ব্যবসায়ী লোন প্রদান করে থাকে। আপনি যদি কোন টেডিং কিংবা উৎপাদন কারযক্রমের সাথে জড়িত ব্যবসায় পরিচালনা করে থাকেন তবে বাংলাদেশ রূপালী ব্যাংক লিমিটেড হতে সর্বোচ্চ ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ব্যবসায়ী লোন সুবিধা পেতে পারেন।

  • লোনের পরিমাণ কমপক্ষে ৫ কোটি টাকা
  • লোনের মেয়াদ – ব্যাংকের উপর নির্ভরশীল
  • সুদের হার – ৯% (পরিবর্তনশীল)
  • নিরাপত্তা – একক মালিকানার ক্ষেত্রে সম্পত্তির বিক্রয়ের ৭৫% হিসাবে এবং সহ-ভাগ মালিকানার ক্ষেত্রে সম্পত্তির বিক্রয়ের ৫০% হিসাবে ঋণ দেওয়া হয়ে থাকে।
  • কারা কারা আবেদন করতে পারবে – বাংলাদেশের সকল ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তা
  • লোন আবেনদ ফি – ২০০ টাকা
  • অনন্যা ফি – ডকুমেন্ট ফি, সি আই বি ফি, স্ট্যাম্প ফি।

রূপালী ব্যাংক মাঝারি লোন

প্রিয় ভিজিটর আপনার কি মাঝারি ব্যবসার জন্য লোণের প্রয়জন তাহলে বাংলাদেশ রূপালী ব্যাংকের মাধ্যমে আপনি ও মাঝারি ব্যবসার জন্য ঋণ সুবিধা পেতে পারেন। যারা মাঝারি ব্যবসার সাথে জড়িত কিংবা মাঝারি ব্যবসা শুরু করতে চান তাদের কে রূপালী বাংক দিচ্ছে সর্বোচ্চ ৭৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ঋণ সুবি্ধা। মাঝারি ঋণ পেতে যা যা প্রয়জন তা হল-

  • লোনের পরিমাণ কমপক্ষে ৭৫ কোটি টাকা
  • লোনের মেয়াদ – সর্বোচ্চ ১২০ মাস মেয়াদী ঋণ প্রদান করে থাকে (ব্যাংকের উপর নির্ভরশীল)
  • রূপালী ব্যাংকে মাঝারি ঋণের সুদের হার ৯% (পরিবর্তনশীল)
  • সকল মাঝারি উদ্যোক্তাগন আই ঋণ নিতে করতে পারবেন
  • মাঝারি ঋণের জন্য আবেদন ফি পরিমাণ ২০০ টাকা
  • মাঝারি ঋণের অনন্যা যে সকল ক্ষেত্রে ফি প্রয়জন তা হল ডকুমেন্ট ফি, সি আই বি ফি, স্ট্যাম্প ফি ইত্যাদি।

রূপালী ব্যাংক পেশাজীবী লোন

তরুণ উদ্যোক্তা তৈরির জন্য কাজ করছে বাংলাদেশ রূপালী ব্যাংক। যারা নতুন কোন ব্যবসা বা কোন আর্থিক কাজ পরিচালনা করতে চায় কিন্তু অর্থের অভাবে করতে পারে না বা লোণের প্রয়জন তাদের কে রূপালী ব্যাংক ঋণ হিসাবে দিচ্ছে সর্ববোচ্চ ১০০ লাখ টাকা। রূপালী ব্যাংক যে যে শর্তে এই ঋণ দিচ্ছে তা হল-

  • পেশাজীবী ঋণের পরিমাণ হতে হবে সর্বনিম্ন ১০০ লাখ পর্যন্ত।
  • ঋণের মেয়াদকাল সর্বোচ্চ ৬০ মাস পর্যন্ত হয়ে থাকে। (ব্যাংকের উপর নির্ভরশীল)
  • সুদের হার ৯% তবে ব্যাংক চাইলে সুদের হার কমাতে বা বাড়াতে পারে।
  • পেশাজীবী ঋণের ক্ষেত্রে নিরাপত্তা হিসাবে শিক্ষাগত বা পেশাদার প্রশাংসাপত্র এবং ৩য় পক্ষ হিসাবে কাউকে প্রয়জন হবে।
  • পেশাজীবী ঋণের ক্ষেত্রে আবেদন ফি হিসাবে ২০০ টাকা প্রয়জন হবে এবং অনন্যা যে সকল ক্ষেত্রে ফি প্রয়জন হবে তা হল ডকুমেন্ট ফি, সি আই বি ফি, স্ট্যাম্প ফি ইত্যাদি।

সহজ ঋণ

বাংলাদেশ রূপালী ব্যাংক লিমিটেড কুটির শিল্প এবং উৎপাদন কার্যক্রম পরিচালনার জন্য লোন দিয়ে থাকে। যাদের কুটির শিল্প কিংবা উৎপাদন কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষেত্রে অর্থের প্রয়জন তাদের কে রূপালী ব্যাংক সহজ শর্তে দিচ্ছে সর্বোচ্চ ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ সুবিধা। ঋণ উত্তলনের ক্ষেত্রে যে সকল শর্তে রয়েছে তা হল-

  • সর্বোচ্চ ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ উত্তোলন করা যাবে।
  • সহজ ঋণের মেয়াদকাল সর্বোচ্চ ৪৮ মাস তবে ব্যাংক চাইলে এই সময় কমাতে বা বাড়াতে পারবে।
  • এই রিনে সুদের হার ৯% (পরিবর্তনশীল)
  • সহজ লোনে ব্যাংক নিরাপত্তা হিসাবে বাক্তিগত কিংবা ৩য় পক্ষের কোন ব্যক্তির বাংকে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত জমা থাকতে হবে।
  • সহজ ঋণ পেতে আবেদনের জন্য আবেদন ফি ২০০ টাকা প্রয়জন হবে।
  • এই ঋণ পেতে অনন্যা যে সকল ক্ষেত্রে ফি প্রজন তা হল- ডকুমেন্ট ফি, সি আই বি ফি, স্ট্যাম্প ফি, আইনি ফি এবং মূল্যায়ন ফি ইত্যাদি।

আরও পড়ুনঃ প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক লোন

সুলভ ঋণ

ক্ষুদ্র শিল্প ও উৎপাদন ভিত্তিক কার্যক্রম পরিচালনার লক্ষে রূপালী ব্যাংক উদ্যোক্তাদের সুলভ ঋণ দিয়ে থাকে। আমরা যারা ক্ষুদ্র শিল্প ও উৎপাদন ভিত্তিক কার্যক্রম পরিচালনার আর্থিক সংকটে রয়েছি কিংবা ক্ষুদ্র শিল্প ও উৎপাদন ভিত্তিক কার্যক্রম চালু করার জন্য আমাদের যাদের অর্থের প্রয়জন তাদের কে বাংলাদেশ রূপালী ব্যাংক লিমিটেড দিচ্ছে সর্বোচ্চ ২০০ লাখ টাকা পর্যন্ত সুলব ঋণ সুবিধা। এই ঋণ গ্রহনের ক্ষেত্রে যে সকল শর্ত রয়েছে তা হল-

  • সুলভ ঋণের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ২০০ লাখ টাকা ঋণ নেওয়া যাবে।
  • সুলভ লোনের মেয়াদকাল সর্বোচ্চ ৯৬ মাস(পরিবর্তনশীল)
  • এই ঋণের ক্ষেত্রে সুদের হার ৯% তবে ব্যাংক চাইলে কমাতে বা বাড়াতে পারে।
  • সুলভ লোনের জন্য আবেদন ফি হিসাবে ২০০ টাকা ফি হিসাবে দিতে হবে। অনন্যা যে সকল ক্ষেত্রে ফি প্রয়জন হবে তা হল- ডকুমেন্ট ফি, সি আই বি ফি, স্ট্যাম্প ফি ইত্যাদি।

বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড কর্মচারী হাউজ বিল্ডিং লোন

বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের স্থায়ী চাকুরীজীবী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বাড়ি কিংবা ফ্ল্যাট কেনা ও নির্মাণের জন্য রূপালী ব্যাংক লিমিটেড সর্বোচ্চ ৭৫ লাখ টাকা পর্যন্ত লোন প্রদান করে থাকে। যা মাসিক কিস্তিতে পরিশোধযোগ্য যা সেবিংস একাউন্ট কিংবা স্যালারি একাউন্ট থেকে কেটে নেওয়া হবে এবং এই লোনের মেয়াদ সর্বোচ্চ ২০ বছর।

পাওয়ার ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক হাউজ বিল্ডিং লোনের যোগ্যতাঃ

লোন পেতে ইচ্ছুক ব্যাক্তিকে অবশ্যই বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের স্থায়ী চাকুরীজীবী হতে হবে। আবেদনকারীর বয়স ৫৮ বছরে বেশি হতে পারবে না। কয়েকজন মিলে ভবন নির্মাণ করলে অংশীদারদের সংখ্যা ১৫ জনের বেশি হওয়া যাবে না।

আরও পড়ুনঃ সোনালী ব্যাংক লোন পদ্ধতি

রূপালী ব্যাংক লিমিটেড জেনারেল হাউজ বিল্ডিং হোম লোন

রূপালী ব্যাংক লিমিটেড হোম লোনগুলোর মধ্যে এটি সবচেয়ে বেশি পরিচিত। বাংলাদেশের যে কোন নাগরিক, অংশীদারি কোম্পানি, প্রাইভেট ও পাবলিক লিমিটেড কোম্পানি রূপালী ব্যাংক হোম লোনের জন্য আবেদন করতে পারবেন। সর্বোচ্চ ১৫ বছর মেয়াদে ১২০ লাখ টাকা পর্যন্ত (মোট খরচের ৬০ শতাংশ) হোম লোন প্রদান করে থাকে। ১৮ বছর বা তার বেশি বয়সী এবং ঋণ পরিশোধে সক্ষম বাংলাদেশের যে কোন নানাগরিক Rupali Bank Ltd. হোম লোনের জন্য আবেদন করতে পারবেন। সুদের হার ৯% (পরিবর্তনশীল)।

সরকারি কর্মচারী হোম লোন

আপনি যদি একজন সরকারি চাকরিজীবী হয়ে থাকেন এবং একটি বাড়ি বানাতে কিংবা ফ্ল্যাট কিনতে চান তাহলে রূপালী ব্যাংক সরকারি চাকরিজীবী হোম লোনের জন্য আবেদন করতে পারেন। সর্বোচ্চ ২০ বছর মেয়াদে মাসিক কিস্তিতে পরিশোধযোগ্য। মোট খরচের সর্বোচ্চ ৯০ শতাংশ পর্যন্ত লোন প্রদান করে থাকে। তবে আবেদন কারীর বয়স সর্বোচ্চ ৫৮ বছর বা তার বেশি হওয়া যাবে না। অংশীদার থাকলে সর্বোচ্চ ১৫ জন অংশীদার থাকতে পারবে।

পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় কর্মচারী হোম লোন

বাংলাদেশের বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে চাকরিজীবীদের জন্য বাংলাদেশ রূপালী ব্যাংক বিশেষ হোম লোন সুবিধা প্রদান করে থাকে। মাসিক কিস্তিতে পরিশোধযোগ্য সর্বোচ্চ ২০ বছর মেয়াদে সর্বোচ্চ ৭৫ লাখ বা মোট খরচের ৯০ শতাংশ লোন প্রদান করে থাকে।

রূপালী ব্যাংক কি সরকারি?

বাংলাদেশ রূপালী ব্যাংক লিমিটেড একটি রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংক।

রূপালী ব্যাংক কতো সালে প্রতিষ্ঠিত হয়?

১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়।

আরও পড়ুনঃ অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড লোন পদ্ধতি

সর্বশেষ

সম্মানিত ভিজিটর, আজকের মতো এখানেই শেষ করছি। আমাদের লেখা নিয়ে আপনাদের কোন মতামত, প্রশ্ন কিংবা জিজ্ঞাস থাকলে শেয়ার করতে পারেন আমাদের সাথে। ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন।