https://tipswali.com/wp-content/uploads/2021/12/Uttara-Bank-loan.jpg

উত্তরা ব্যাংক হোম লোন: বাংলাদেশের প্রায় সব সরকারি ও বেসরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংক থেকে হোম লোন বা গৃহ ঋণ দেওয়া হয়। উত্তরা ব্যাংক বাংলাদেশের বেসরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর মধ্যে অন্যতম। বর্তমানে সারা বাংলাদেশে এই বাংকটির ২৩৫ টি শাখা ও ৩৮ টি বৈদেশিক বাণিজ্য শাখা রয়েছে। এবং বেসরকারি এই ব্যাংকটি ৬০০ টি বিদেশী আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সাথে যুক্ত রয়েছে। সকল প্রকার ব্যাংকিং সেবা যেমন- ব্যাক্তিগত ও ব্যাবসায়ি সেভিংস, চলিত একাউন্ট, ডিপিএস, ডেবিট কার্ড, ক্রেডিট কার্ড, ইনস্যুরেন্স, ইত্যাদির পাশাপাশি বিভিন্ন প্রকার ব্যাক্তিগত ও ব্যবসায় ঋণ যেমন- এসএমই, হোম, গাড়ি, শিক্ষা, ডক্টরস, কৃষি, বিবাহ, ট্র্যাভেল ও অন্যান্য ঋণ সেবা প্রদান করে থাকে।

বাংলাদেশে স্থায়ীভাবে বসবাসকারী লোন পরিশোধে সক্ষম যেকোন এনজিও, মাঝারি এবং বৃহৎ লোকাল বা মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানি, ও ব্যাংকের নিকট গ্রহণযোগ্য বেসরকারি ও সকারির চাকরিজীবীরা উত্তরা ব্যাংক হোম লোনের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

প্রিয় ভিজিটর, আজকের লেখাজুড়ে আমি আপনাদের সাথে উত্তরা ব্যাংকের হোম লোন সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো। উত্তরা ব্যাংক হোম লোন পাওয়ার যোগ্যতা, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, লোনের পরিমাণ, সুদের হার, মেয়াদ, ফি, আবেদনের নিয়ম ও অন্যান্য বিষয় সম্পর্কেও আলোচনা করবো। Uttara Bank Home Loan.

Table of Contents

উত্তরা ব্যাংক হোম লোনের পরিমাণ

পর্যাপ্ত পানি বিদ্যুৎ ইত্যাদির মতো সুযোগ সুবিধা আছে এমন এলাকায় আবাসিক কিংবা বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে ফ্ল্যাট বা বাড়ি কেনা বা তৈরির জন্য উত্তরা ব্যাংক সরল সুদে সর্বনিম্ন ৫ লক্ষ টাকা এবং সর্বোচ্চ ৭৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন দিয়ে থাকে। ফ্ল্যাট বা বাড়ি কেনার জন্য বাজার মুল্যের সর্বোচ্চ ৭০% পর্যন্ত লোন প্রদান করে থাকে।

উত্তরা ব্যাংক হোম লোন পাওয়ার যোগ্যতা

  • বেতনভোগী চাকরিজীবী হলে চাকরির বয়স নুন্যতম ৩ বছর এবং বর্তমান প্রতিষ্ঠানে নুন্যতম ১ বছর ধরে চাকরি করা।
  • আবেদনের সময় নুন্যতম ৩০ বছর ও সর্বোচ্চ ৬৫ বছর (লোনের মেয়াদ শেষ হওয়ার সময়)।
  • বার্ষিক আয় লোনের মোট বার্ষিক কিস্তির কমপক্ষে তিনগুন হতে হবে। অর্থাৎ বাৎসরিক মোট কিস্তি ১০০ টাকা হলে স্যালারি বা আয় ৩০০ টাকা বা তার বেশি হতে হবে।
  • বর্তমান ঠিকানায় নুন্যতম ৬ মাস বসবাস করতে হবে।

সুদ ও ফি

বার্ষিক সুদের হার ১২.০০% যা ঋণের পুরো মেয়াদজুড়ে স্থির থাকবে। লোন প্রসেসিং ফি ১.৫% বা ৫০০০ টাকা (কমও হতে পারে)। প্রথম কিস্তি লোন প্রদানের তারিখ থেকে ১ মাসের মধ্যে শুরু হবে।

মেয়াদ ও কিস্তি

উত্তরা ব্যাংক সর্বনিম্ন ১ বছর ও সর্বোচ্চ ১৫ বছর মেয়াদী মাসিক কিস্তিতে পরিশোধযোগ্য হোম লোন প্রদান করে থাকে।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

উত্তরা ব্যাংক হোম লোনের জন্য নিম্ন লিখিত কাগজপত্র প্রয়োজন বা থাকতে হবে-

  • আবেদনকারী ও গ্যারান্টারের সদ্য তোলা পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি।
  • হোম লোন আবেদন কারী ও গ্যারান্টারের ভোটার আইডি কার্ড বা জাতীয় পরিচয়পত্র কিংবা ড্রাইভিং লাইসেন্সের ফটোকপি।
  • ইউটিলিটি বিলের কপি (যেমন- বিদ্যুৎ, গ্যাস, পানি বিলের কপি)
  • সর্বশেষ ট্যাক্স পরিশোধের ট্যাক্স সার্টিফিকেটের ফটোকপি।
  • আবেদনকারী ও গ্যারান্টারের সম্পদ ও দায়ের বিবরণী।
  • বিগত ১২ মাসের ব্যাংক স্টেটমেন্ট (আবেদনকারীর)।
  • নির্মাণ/ক্রয় খরচের বিবরণী।
  • জমি/ফ্ল্যাট কেনার আইনি দলিল।

আরও পড়ুনঃ ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার নিয়ম

সিকিউরিটি বা জামানত

উত্তরা ব্যাংক থেকে হোম লোন পেতে জামানত ও সিকিউরিটিঃ

  • ঋণের বিপরীতে সম্পত্তির বন্ধক – নথির চেইন সহ মূল টাইটেল ডিড জমা।
  • বন্ধককৃত সম্পত্তি যখন প্রয়োজন তা বিক্রির ক্ষমতা দেওয়া। (নিবন্ধিত অপরিবর্তনীয় জেনারেল পাওয়ার অফ এটর্নি।)
  • নির্ধারিত সময়ে মাসিক কিস্তি পরিশোধের অঙ্গীকারনামা।
  • সকল কিস্তির জন্য অগ্রিম চেক জমা।
  • পিতা মাতা বা ব্যাংকের নিকট গ্রহণযোগ্য ব্যাক্তির ব্যাক্তিগত গ্যারান্টি।

আবেদনের নিয়ম

উত্তরা ব্যাংক হোম লোনের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে আপনি যে এলাকায় বাড়ি কিংবা ফ্ল্যাট কিনতে চান ওই এলাকায় বা নিকটস্থ উত্তরা ব্যাংক শাখায় লোন কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করুন। নির্ধারিত লোন আবেদন ফরম পূরণ ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র প্রদানের পর সবকিছু যাচাই বাচাই করে আপনি লোনের জন্য যোগ্য বলে বিবেচিত হইলে ব্যাংকিং আনুষ্ঠানিকতা পালন শেষে আপনাকে উক্ত লোন প্রদান করবে।

জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন ও উত্তর

উত্তরা ব্যাংক হোম লোনের সুদের হার কত?

উত্তরা ব্যাংক হোম লোন বা গৃহ ঋণের বার্ষিক সুদের হার ১২.০০% যা ঋণের পুরো মেয়াদজুড়ে স্থির থাকবে।

উত্তরা ব্যাংক কি সরকারি?

না উত্তরা ব্যাংক সরকারি ব্যাংক নয়। এটি একটি প্রাইভেট বা বেসরকারি ব্যাংক।

সর্বশেষ

সম্মানিত ভিজিটর, আজকের মতো এখানে শেষ করছি। Uttara Bank Home Loan নিয়ে আপনার কোন জিজ্ঞাসা, মতামত কিংবা পরামর্শ থাকলে শেয়ার করুন আমাদের সাথে। ব্যাক্তিগত ও বাণিজ্যিক ফাইন্যান্স সম্পর্কিত টিপস-ট্রিকস ও অজানা বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর জানতে ভিজিট করুন টিপসওয়ালী ফাইন্যান্স

আরও পড়ুনঃ সোনালী ব্যাংক লোন, জনতা ব্যাংক লোন