https://tipswali.com/wp-content/uploads/2021/05/Josti-modhu.jpg

প্রাচীন কাল থেকেই যষ্টিমধু মানুষের কাছে এক পরিচিত নাম। সম্মানিত পাঠক আজকের লেখা জুড়ে বিস্তারিত আলোচনা করব যষ্টিমধু কি, এর গুনাগুন, খাওয়ার নিয়ম, উপকারিতা, পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া, কোথায় পাওয়া যায়, যষ্টি মধুর দাম, সহ এ সম্পর্কিত অন্যান্য বিষয়ে বিস্তারিত। তো কথা না বাড়িয়ে চলুন শুরু করা যাক।

যষ্টিমধু কি?

Josti modhu বা যষ্টিমধু ছচ্ছে  শিম পরিবার ফ্যাবাসেই এর এক প্রকার ফুল জাতীয় উদ্ভিদ যার মূল বা শেকড় থেকে একটি মিষ্টি ও সুগন্ধ যুক্ত স্বাদ আহরন করা যায়। একে বিশ্বের প্রাচীন ভেষজ প্রতিকার হিসেবেও বিবেচনা করা হয়ে থাকে। যার ইংরেজি অর্থ Liquorice.

যষ্টিমধুর পুষ্টিগুন

ওয়েবএমডি এর মতে কালো যষ্টিমধুতে বেশি পুষ্টিগুন রয়েছে। প্রায় ১.৫ আউন্স কালো যষ্টিমধুতে রয়েছে- ১৪০ ক্যালোরি, প্রোটিন ১ গ্রাম, ফ্যাট ১ গ্রাম, ৩৩ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট, ফাইবার ১ গ্রাম এবং চিনি ৬ গ্রাম।

যষ্টিমধু খাওয়ার ৭ উপকারিতা

প্রাচীন কাল থেকেই ভেষজ চিকিৎসায় যষ্টিমধু ব্যবহার হয়ে আসছে। দুর্বল পেট প্রশমিত করা, পদাহ কমানো ও উচ্চ শ্বাসকষ্ট জনিত সমস্যার জন্য চীন, মধ্যপ্রাচ্য, এবং গ্রীক দেশে এর ব্যবহার বেশ পুরাতন। এছাড়াও যষ্টিমধুর নানা উপকারিতা আছে। চলুন এর আরও কিছু উপকারিতা জেনে নেওয়া যাকঃ

১) ত্বকের স্বাস্থ্যের উন্নতি

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল লাইব্রেরী অভ মেডিসিন এর মতে। লিকারিস বা যষ্টিমধুতে ৩০০ টিরও বেশি যৌগ রয়েছে। এদের মধ্যে রয়েছে শক্তিশালী অ্যান্টি-ইনফ্যামেটরি, অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টিভাইরাল প্রভাব। আর এই জন্য ত্বকের বিভিন্ন প্রদাহ, একজিমা, সোরিয়াসিস পায়ের ছত্রাক জইত সমস্যা সমাধানে এটি সাহায্য করে।

২) যষ্টিমধু গ্যাস ও বদহজম হ্রাস করতে সাহায্য করে

ন্যাশনাল লাইব্রেরী অভ মেডিসিন এর বিশেষ গবেষণায় দেখা যায় Josti modhu পেটব্যাথা, বমি বমি ভাব ও গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা সমাধানে বেশ কার্যকরী।

৩) পেপটিক আলসার থেকে মুক্তি

পেট, নিচের খাদ্যনালী ও ছোট অন্ত্রের মধ্যে বেদনা দায়ক পেপটিক আলসার সাধারণত পাইলোরি ব্যাকটেরিয়ার দ্বারা প্রদাহজনিত কারনে হয়ে থাকে। যষ্টিমধু আপনাকে পেপটিক আলসার থেকে রক্ষা করে।

৪) রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

যষ্টিমধুতে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট ও অ্যান্টি-ইনফ্যামেটরি যা একধরনের ক্যানসারের বিরুদ্ধে প্রতিরোধগড়ে তোলে। এটি আপনার শরীর থেকে ফ্রি র‍্যাডিকেল দূর করে। ও অন্যান্য রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

৫) শ্বাস-প্রশ্বাস জনিত সমস্যার সমাধান

আমাদের মধ্যে অনেকেরই শ্বাস-প্রশ্বাস জনিত সমস্যা দেখা যায়। মূলত শ্বাস-তন্ত্রের সমস্যার কারনে আমাদের শ্বাস-প্রশ্বাস জনিত সমস্যা হয়। এতে থাকা অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান সংক্রমণ ও গলাব্যাথা কোমায়। কাশি থাকলে যষ্টিমধু সিতোপালাদি গুঁড়া ও মধু মিশিয়ে খেলে ভালো ফলাফল পাওয়া যায়।

৬) ক্যাভেটির আক্রমণ থেকে মুক্তি

ক্যাভেটির আক্রমণ থেকেই মূলত আমাদের দাঁত ও মাড়িতে নানা সমস্যা দেখা দেয় যষ্টিমধুতে থাকা অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান দাঁত ও মাড়ির জন্য ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া থেকে রক্ষা করে।

৭) হেপাটাইটিস-সি এর চিকিৎসায় যষ্টিমধু

সাম্প্রতিক সময়ে আমাদের দেশে তথা সমগ্র বিশ্বজুড়ে হেপাটাইটিস-সি রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলছে।  সাম্প্রতিক সময় হেপাটাইটিস-সি এর চিকিৎসায় চিকিৎসকরা প্রাথমিক ভাবে যষ্টিমধু ব্যবহার করছে।

এই সকল উপকারের পাশাপাশি ডায়াবেটিস প্রতিরোধ, ওজন কমাতে সাহায্য করে।

যষ্টিমধু খাওয়ার নিয়ম

আপনি চাইলে যষ্টিমধু গুঁড়া অথবা ছিলে ছিলে খেতে পারেন। পানিতে ভিজিয়ে, চায়ের সাথে কিংবা চকলেট বানিয়ে Josti modhu খাওয়া যায়।

চায়ের সাথে যষ্টিমধু খাওয়ার জন্য এক কাপ পরিমান পানিতে আধা আউন্স যষ্টিমধু দিয়ে ১ও মিনিট সিদ্ধ করুন। এর পর একটি ছাকুনি দিয়ে ছেকে কাপে ঢেলে চা বানিয়ে নিন। আপনি চাইলে একফালি দারুচিনি ও আদা মিশিয়ে নিতে পারেন। খেয়াল রাখবেনএটি এমনিতেই মিষ্টি তাই চিনি মেশানোর আগে দেখে নিন আপনার অতিরিক্ত চিনি প্রয়োজন কিনা। তবে চিনি কম বা চিনি ছাড়া খাওয়াই উত্তম।

আরও পড়ুনঃ অ্যাভোকাডো ফলের উপকারিতা খাওয়ার নিয়ম

যষ্টিমধুর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

উপকারের পাশাপাশি যষ্টিমধু বেশ পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে। বিশেষ করে ছোট বাচ্চা ও গর্ভবতী মহিলাদের জন্য যষ্টিমধু খেতে দেওয়া যাবে না। আবার আপনার বয়স যদি ৪০ বছরের বেশি হয় তবে আপনি যদি টানা দুই সপ্তাহ দিনে ২ আউন্স বা ৫৭ গ্রাম কালো যষ্টিমধু খান তবে আপনার উচ্চ রক্তচাপ ও হৃদরোগের সম্ভাবনা দেখা দিতে পারে।

এছাড়াও অনেক ঔষধের সাথে নেতিবাচক প্রভাব তৈরি করতে পারে। তাই আপনি যদি নিয়মিত কোন ঔষধ সেবন করে থাকেন তবে Josti modhu খাওয়ার আগে অবশ্যই আপনার ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

কোথায় পাওয়া যায়?

বাংলাদেশের বিভিন্ন অনলাইন শপ ভেষজ বা আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা সামগ্রী বিক্রি করে এই সকল দোকানে যষ্টিমধু ও যষ্টি মধু গুঁড়া কিনতে পাওয়া যায়। এছাড়া ফার্মেসী থেকে শুরু করে মহল্লার ছোট মুদি দোকানেও Josti modhu কিনতে পাওয়া যায়।

যষ্টি মধুর দাম

১০০ গ্রাম যষ্টিমধুর গুঁড়ার দাম ৬০ টাকা থেকে ৮০ টাকা।

সর্বশেষ

সম্মানিত ভিজিটর আজকের মতো এখানেই শেষ করছি। লেখা নিয়ে আপনার কোন মতামত, পরামর্শ, অভিযোগ থাকলে শেয়ার করুন আমাদের সাথে। আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন আমাদের ফেসবুক পেজে।

আরও পড়ুনঃ

মেথির উপকারিতা, ব্যবহার

জাফরান উপকারিতা ও আসল জাফরান চেনার উপায় 

Spread the love