https://tipswali.com/wp-content/uploads/2021/02/skin-care-tips-for-men-bangla.jpg

ছেলেদের/পুরুষের রূপচর্চার দরকার কিসের তাদের মধ্যে একটু কড়া লুক থাকবে এটাই স্বাভাবিক। দিন বদলে গেছে আজকাল ছেলেদের অফিস, পার্টি কিংবা নানা উৎসবে একটি ভদ্র লুক নিয়ে হাজির হওয়ার ট্রেন্ড চালু হয়ে গেছে। মেয়েদের মতো ছেলেরাও তাদের রূপচর্চা ও স্বাস্থ্য নিয়ে বেশ কেয়ারিং। অবশ্য এটা ছেলে মেয়ে উভয়েরি প্রয়োজন বা করা উচিৎ। তবে হাফ-ছেলে টাইপের ছেলে পেলে কিন্তু আমার কাছে এক দম পছন্দের না। যাহোক মূল কথায় আশা যাক। প্রিয় পাঠক, আজকের লেখায় কথা হবে ছেলেদের স্কিন বা ত্বকের যত্ন নিয়ে। কিভাবে ছেলেদের মুখের ত্বকের যত্ন নিবেন এবং ছেলেদের তৈলাক্ত ও শুষ্ক ত্বক ফর্সা করার ঘরোয়া উপায় সম্পর্কে। তো কথা না বাড়িয়ে চলুন শুরু করা যাক।

১)  মধু ও লেমন দিয়ে মুখ পরিষ্কার করুন

আয়ুর্বেদিক শাস্ত্রে রূপচর্চায় মধু ব্যবহার সেই প্রাচীন কাল থেকে। এর লেমন জুস প্রাকৃতিক ভাবে ত্বক পরিষ্কারে কাজ করে থাকে। আপনি চাইলে ফেস ওয়াসের পরিবর্তে লেমন জুস ব্যবহার করতে পারেন। স্কিন ফর্সা করার পাশাপাশি এটি আপনার স্কিনে এনে দিবে বাড়তি সতেজতা এবং উজ্জ্বলতা। লেবুর রসের সাথে মধু মিশিয়ে আপনি একদম ভালো মানের একটি ফেস ওয়াস তৈরি করে নিতে পারেন। যা আপনার ত্বক ফর্সা করতে খুবই কার্যকরী। মধু আপনার ত্বককে হাইড্রেট করবে এবং মুখ থেকে ময়লা দূর করতে সাহায্য করবে। তবে আপনি চাইলে মধু ও লেবুর পরিবর্তে আনারস ও ব্যবহার করতে পারেন।  আনারস এর পাতলা স্লাইস কেটে আপনার মুখে লাগিয়ে রাখুন। ১৫-২০ মিনিট পর নরমাল ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ভালো ভাবে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

২) মধু ও কফির স্ক্রাব দিয়ে স্ক্রাব করুন

কি একটু অবাক হয়ে গেলেন নাকি। কফি তো খাওয়ার জিনিস এটা দিয়ে আবার স্ক্রাব কিসের। হ্যাঁ মুখ পরিষ্কার করতে কফি ও মধুর স্ক্রাব বেশ কার্যকরী। এক চা চামচ মধু ও এক চা চামচ কফি নিন । মধুর সাথে কয়েক ফোটা অলিভ অয়েল নিন। এর পর ভালো ভাবে মিক্স করুন। পেস্টের মতো তৈরি হয়ে গেলে ফেস মাস্ক এর মতো মুখে লাগান। ৫-১০ মিনিট এভাবে রেখে দিন। এর পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ভালো ভাবে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাকটি ছেলেদের মুখের স্কিন পরিষ্কারে বেশ কার্যকরী। ২-৩ দিন পর পর ১ বার এই প্যাকটি এপ্লাই করুন। নিয়মিত করলে আশা করি বেশ ভালো ফলাফল পাবেন।

৩) বাদাম, চন্দন, নিম পাতা ও হলুদের ফেস প্যাক ব্যবহার করুন

ছেলেদের স্কিন বা ত্বক ফর্সা করতে এতো কিছুর প্রয়োজন? মুখে যদি তৈলাক্ত ভাব থাকে অর্থাৎ তৈলাক্ত স্কিনের জন্য এই ফেস প্যাকটি বেশ ভালো কাজ করে। কম্বাইন্ড ত্বকের জন্যও এটি ব্যবহার করতে পারেন। সবুজ নিম পাতা বেটে পেস্টের মতো তৈরি করে নিন। এর সাথে চন্দন কাঠের গুঁড়া, বাদামের গুঁড়া এবং হলুদ গুঁড়ো পরিমান মতো মিক্স করুন। এই প্যাকটি আপনার মুখে এপ্লাই করুন। এবং ২০ মিনিট রেখে দিন। ২০ মিনিট পড়ে কুসুম গরম পানি দিয়ে ভালোভাবে মুখ ধুয়ে ফেলুন। সাথে সাথেই আপনি আপনার মুখের স্কিনে বেশ পার্থক্য দেখতে পাবেন। ছেলেদের ত্বক ফর্সা করার ক্রিম বাদ দিয়ে এই প্রাকৃতিক প্যাকটি ব্যবহার করা ভালো।

৪) কমলার রস ও কাঁচা হলুদের পেস্ট ব্যবহার করুন

ছেলেদের ফর্সা ত্বকের জন্য কমলা বেশ কার্যকরী। এতে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন সি, যা আপনার স্কিন বা ত্বক ফর্সা করতে সাহায্য করে। পাশাপাশি এটি আপনার মুখের ত্বকের কোমলতা এবং স্কিনকে সতেজ করে তোলে। ২ টেবিল চামচ কমলার রসের সাথে এক চিমটি হলুদের গুঁড়া বা কাঁচা হ্লুদ নিন। এর পর ভালো ভাবে মিশিয়ে নিন। এর পর ২০ মিনিট এর মতো আপনার মুখে লাগিয়ে রাখুন এবং নরমাল পানি দিয়ে ভালো ভাবে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

৫) ছেলেদের ত্বক এর  যত্নে পেপের ফেস মাস্ক ব্যবহার করুন

পেঁপে আপনার মুখের স্কিন/ত্বক ফর্সা ও উজ্জ্বল করে। পেঁপেতে রয়েছে পেপাইন, এটি একটি এনজাইম যা আপনার ত্বককে এক্সফোলাইটেড করতে সাহায্য করে। পেঁপের ফেস মাস্ক তৈরি করতে একটি ভালো পাকা পেঁপে নিন। এর পর পেঁপেটির ছোলা ফেলে ধুয়ে ব্লেন্ডার দিয়ে ব্লেন্ড করে নিন। এর পর আপনার মুখে এপ্লাই করুন এবং ১৫-২০ মিনিট পড়ে হালকা কুসুম গরম পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।

ছেলেদের মুখ বা ত্বক ফর্সা করতে আরও কিছু টিপস

ত্বক ফর্সা এবং উজ্জ্বল করতে উপরের যে কোন একটি পদ্ধতি নিয়মিত করুন। পাশাপাশি একটি ভালমানের ফেসওয়াস ব্যবহার করুন। বাহির থেকে ঘরে ফেরার সাথে সাথে হাত মুখ পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। প্রতিদিনের খাবার ও ঘুমও ছেলেদের ত্বকের উজ্জ্বলতার উপর বেশ প্রভাব ফেলে। নিয়মিত স্বাস্থ্যসম্মত খাবার গ্রহন করুন। প্রচুর পানি পান করুন। বেশ বেশি মৌসুমি ফল মূল খাওয়ার চেষ্টা করুন। খাবার তালিকায় সবুজ শাকসবজি রাখুন।

সম্মানিত ভিজিটর বাংলা ভাষায় ছেলে মেয়েদের ফর্সা হওয়ার টিপস, বিউটি টিপস, ফ্যাশন, রান্না সহ হাজারো টিপস পড়তে নিয়মিত ভিজিট করুন আপনাদের প্রিয় টিপসওয়ালী ডট কম।

Spread the love